যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে প্রথমে বৈঠকে যে হুঁশিয়ারি দিল তালেবান

আফগান সরকারকে অস্থিতিশীল করার জন্য আমেরিকাকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে তালেবান। কাবুল থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর দু’পক্ষের প্রথম মুখোমুখি বৈঠকে আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী হুঁ’শিয়া’রি উচ্চারণ করে। এএফপির খবরে বলা হয়,

গত ৩১ আগস্ট আফগানিস্তান থেকে চলে আসার পর এই প্রথম যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রতিনিধিদল তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে সরাসরি বৈঠক করছে। এর আগে ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তালেবানের গোপন আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

সেই আলোচনায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন আফগানবিষয়ক মার্কিন বিশেষ দূত জালমাই খালিজাদ। এবারের বৈঠকে খালিজাদ থাকছেন না বলে জানা গেছে। শনিবার প্রথম দিনের বৈঠক শেষে আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকী বলেন,

কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠকের সময় তাদেরকে স্পষ্ট করে বলা হয়েছে, আফগান সরকারকে দুর্বল করার যেকোনো প্রচেষ্টা জনগণের জন্য সংক’ট তৈরি করবে। তালেবান সরকারকে অস্থিতিশীল করার প্রচেষ্টা কারো জন্য শুভ ফল বয়ে আনবে না, বরং আফগানিস্তানের সঙ্গে সুসম্পর্ক সবার জন্য কল্যাণকর হবে।

দোহায় মার্কিন প্রতিনিধি দলের সঙ্গে তালেবান সরকারের রোববার দ্বিতীয় দিনের মতো বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তালেবান প্রতিনিধিদলের সঙ্গে শুরু হওয়া এ বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তরের আফগানবিষয়ক উপবিশেষ প্রতিনিধি টম উয়েস্ট এবং ইউএসএআইডির মানবিক সহায়তাবিষয়ক কর্মকর্তা সারাহ চার্লস।

তালেবানের এ হুঁ’শিয়া’রি বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের তরফে কোনো প্রতিক্রিয়ার কথা জানা যায়নি। বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র জানিয়েছিলেন, কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবান প্রতিনিধি দলের সাথে আমেরিকার একটি প্রতিনিধি বৈঠক করবে। তবে এ বৈঠকে আমেরিকা তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেবে এমন কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.