যুক্তরাস্ট্রের জ্বালানি পাইপলাইনে সাইবার হামলা!

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় জ্বালানি সরবরাহ লাইনগুলোর অন্যতম ‘কলোনিয়াল পাইপলাইনে’ সাইবার হামলা হয়েছে। এতে ওই পাইপলাইন দিয়ে জ্বালানি সরবরাহ সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় স্থাপনাগুলোর সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

শনিবার সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে কলোনিয়াল পাইপলাইনে সাইবার হামলা হয়। এ পাইপলাইন দিয়ে প্রতিদিন ১০ কোটি গ্যালনের বেশি গ্যাসোলিন ও অন্যান্য জ্বালানি টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টন থেকে নিউ ইয়র্কে সরবরাহ করা হয়।

পাইপলাইন কোম্পানির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সাইবার হামলা নিয়ন্ত্রণে তারা কিছু সিস্টেম বন্ধ করে দেন। ফলে সাময়িকভাবে পাইপলাইনের সব কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এতে তাদের আইটি সিস্টেম ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

কলোনিয়াল জানিয়েছে, এ ঘটনা তদন্তে একটি থার্ড–পার্টি সাইবার নিরাপত্তা কোম্পানিকে নিয়োগ করা হয়েছে। এ ছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং অন্যান্য ফেডারেল সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে।

কলোনিয়াল পাইপলাইন গড়ে তোলা হয় ১৯৬২ সালে। এর দৈর্ঘ্য ৫ হাজার ৫০০ মাইলেরও বেশি। যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের জ্বালানি চাহিদার ৪৫ শতাংশ এ পাইপলাইন দিয়ে সরবরাহ করা হয়। এতে দুটো সরবরাহ লাইন রয়েছে। একটিতে গ্যাসোলিন সরবরাহ করা হয়। অন্যটি দিয়ে সরবরাহ করা হয় ডিজেল ও জেট ফুয়েল।

এর আগে ২০১৭ সালে গালফ উপকূলে ঘূর্ণিঝড় হার্ভে আছড়ে পড়ার পরও কলোনিয়াল পাইপলাইন দিয়ে জ্বালানি সরবরাহ সাময়িকভাবে বিঘ্নিত হয়েছিল। তার আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ভূগর্ভস্থ পাইপলাইনে ছিদ্র শনাক্ত হওয়ায় এবং নভেম্বরে আলাবামায় পাইপলাইনের পাশ দিয়ে আগুন লাগায় ১১ দিন এর কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

 

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.