রফিকের টিপস চাওয়া হেরাথ এখন বিসিবির স্পিন কোচ

মোহাম্মদ রফিক ছিলেন একজন মিতব্যয়ী স্পিনার। বাংলাদেশ ক্রিকেটের অনেক ‘প্রথমের’ সাক্ষী ও অর্জনকারী মোহাম্মদ রফিক। এই সাবেক ক্রিকেটার ব্যাট ও বল হাতে উভয় বিভাগেই একজন দুর্দান্ত ক্রিকেটার ছিলেন। তবে শুরুতেই কিন্তু তিনি স্পিনার ছিলেন না। রফিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শুরুতে মিডিয়াম পেস বোলিং করতেন।

পেসার থেকে স্পিনার হয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে অবদান হলো সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার ওয়াসিম হায়দারের। তিনিই রফিককে স্পিন বল করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। তারপর তো বাঁহাতি স্পিনেই ইতিহাস গড়লেন রফিক। প্রথম বাংলাদেশি বোলার হিসাবে টেস্ট ক্রিকেটে ১০০টি উইকেট শিকারের রেকর্ড গড়েন তিনি।

প্রথম বাংলাদেশি অলরাউন্ডার হিসাবে টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেটে ১০০ উইকেট শিকার ও ১ হাজার রান রেকর্ডও রফিকের। তার হাতেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের লেফট আর্ম স্পিন যাত্রার শুরু। সে যাত্রার অনুজ হয়েছেন একেএক করে সাবিক আল হাসান, তাইজুল ইসলামের মত বিশ্বসেরা বাহাতি স্পিনার।

রফিক যখন ব্যাটসম্যান শিকারে বাইশ গজে বল ছুড়ছে তখন হয়ত সাকিবরা টেলিভিশনের পর্দায় বাহাতি হওয়ার স্বপ্ন দেখছে। যেকোনো অংশে শুরু করাটা খুব চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়ায়। কারন শিখিয়ে দেওয়া বা বুঝিয়ে নেওয়ার সুযোগটা কেউ নিতে পারেনা। রফিক সে শুরুটা করেছে আর তাইজুলরা সেটা অনুসরণ করে হয়ে উঠছে আরও বেশি ভয়ংকর বাহাতি স্পিনার।

তবে এত কিছুর পরেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে অবহেলিত এক নাম মোহাম্মদ রফিক। দেশের ক্রিকেটে এতশত অবদান রেখেও তার প্রাপ্যটুকু হয়ত ঠিকভাবে মূল্যায়ন করতে ব্যর্থ দেশের ক্রিকেট অঙ্গন। সিনিয়র সাবেক ক্রিকেটারদের মত সম্মাননা বা সুযোগ সুবিধার অনেকটা কমতি থেকে গেল রফিকের।

তাকে রাখা হয়নি বিসিবির অফিসিয়াল কোনো কর্মকাণ্ডে। অথচ দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় সাজানো উচিত ক্রিকেট ব্যক্তিত্বদের আদলেই। তারপরেও দেশের ক্রিকেট তৈরির ভুমিকায় অবদান রাখা মোহাম্মদ রফিক কেন অবহেলিত- এমন প্রশ্নে ঘুরপাক কোটি ক্রিকেট ভক্তদের মনে।

বিশ্বমানের এই স্পিনারকে আরও ভালভাবে কাজে লাগানোর সুযোগ ছিল বিসিবির। কিন্তু বারবারই অবহেলার শিকার আমাদের প্রিয় রফিক ভাই। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে রফিক ভাই জানিয়েছেন যে বর্তমান বাংলাদেশের স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ তার কাছে পরামর্শ চেয়েছিলেন। তবে এতকিছুর পরেও বিসিবির ডাকের অপেক্ষায় আছেন মোহাম্মাদ রফিক। যখনই বিসিবি চাইবে মোহাম্মদ রফিক দেশের জন্য কাজ করতে প্রস্তুত।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.