রাত ৮টার পর বন্ধ থাকবে দোকানপাট

আগামী ১১ জানুয়ারি থেকে রাত ৮টার পরে খুলনা নগরীতে মার্কেট-দোকান খোলা রাখা যাবে না। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় কাঁচামাল পরিবহন ও কাঁচামালের আড়তের ক্ষেত্রে এ সময়সীমা প্রযোজ্য থাকবে না।খুলনা জেলা ও মহানগর করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে তার সম্মেলনকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক। তিনি বলেন, মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানলে করোনা নিয়ন্ত্রণে থাকবে। প্রতিবেশী দেশ ভারতে করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের বিস্তারের কারণে আমরা ঝুঁকির মধ্যে আছি।

ভাইরাসের নতুন ধরন ছড়িয়ে পড়ার আগেই আমাদের প্রস্তুতি নিয়ে সচেতন থাকতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামী ১১ জানুয়ারি থেকে রাত ৮টার পরে নগরীতে মার্কেট-দোকান খোলা রাখা যাবে না। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় কাঁচামাল পরিবহন ও কাঁচামালের আড়ত এ নিয়মের বাইরে থাকবে।

সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, বর্তমানে খুলনা জেলায় করোনা শনাক্ত হওয়া একজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আর গত বছরের ডিসেম্বরে করোনায় জেলায় কেউ মারা যাননি। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে স্বাস্থ্যবিধি মানা ও মাস্ক পরিধানের বিকল্প নেই।

সভায় খুলনা সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লস্কর তাজুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আছাদুজ্জামান, খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার জিনাত আরা আহমেদ, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলামসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.