রোমাঞ্চ জাগিয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়ালো ইংল্যান্ড

লড়াই, রোমাঞ্চ কিংবা মাধুর্যতা। টেস্ট ক্রিকেটে কোনো কিছুরই যেন কমতি নেই। ব্যাটিং ব্যর্থতার জেরে পুরো সিরিজে মুখ থুবড়ে পরা ইংল্যান্ড রোমাঞ্চ জাগালো সিডনি টেস্টে। সফরকারীদের আশার প্রদীপ হয়ে জ্বলে থাকা জনি বেয়ারস্টো ফিরলেও হাল ছাড়েননি স্টুয়ার্ট ব্রড এবং জ্যাক লিচ।

টেস্ট ড্র করতে বড় অবদান রাখে তাদের দুজনের ৫২ বলে ৩৩ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি। তবে শেষ দিকে লিচকে ফিরিয়ে সিডনি টেস্টের রোমাঞ্চে শেষ প্রলেপ দেন স্টিভেন স্মিথ। যদিও শেষ দুই ওভারে উইকেট না হারিয়ে ইংল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা থেকে বাঁচান ব্রড এবং জেমস অ্যান্ডারসন। বিস্তারিত আসছে…

আরও পড়ুন: বাংলাদেশ কাল ঘুরে দাঁড়াবে, নিজেদের সেরাটা দেখাবে : হেরাথ ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের প্রথম দিন আশানুরূপ পারফরম্যান্স দেখাতে না পারলেও দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়াবে বলে আশাবাদী স্পিন কোন রঙ্গনা হেরাথ। হেরাথ প্রথম দিনের প্রচেষ্টার জন্য কৃতিত্ব দিয়েছেন পেসার ও স্পিনারদের।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ প্রথম দিনে মাত্র একটি উইকেটের পতন ঘটাতে পেরেছে। বিনিময়ে কিউইদের জড়ো করা রান প্রায় চারশ ছুঁইছুঁই। বাস্তবতা বলছে, এই টেস্টে বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা খুবই ক্ষীন। অন্তত ফের জয়ের আশা করাটা বেশ কঠিনই বটে।

বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ অবশ্য দলের ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে আশাবাদী। তিনি বলেন, ‘সত্যি বলতে, দিনটি আমাদের জন্য ভালো ছিল না। তবে সব মিলিয়ে কৃতিত্ব দিতে হবে টম ল্যাথাম ও ডেভন কনওয়েকে। তারা খুব ভালো ব্যাট করেছে।’

সারা দিনে বাংলাদেশ মাত্র একটি উইকেটের পতন ঘটাতে পারলেও বাংলাদেশ পেসার ও স্পিনারদের প্রশংসা করতে ভুলেননি হেরাথ। তিনি বলেন, ‘ছেলেরা, বিশেষ করে ফাস্ট বোলাররা শতভাগ দিয়েছে, স্পিনাররাও। আমি নিশ্চিত, এই ছেলেরা কালকে ঘুরে দাঁড়াবে এবং তারা নিজেদের সেরাটা দেখাবে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.