শান্তর ৪ রানের আক্ষেপ, সুবিধাজনক অবস্থানে ‘এ’ দল

জিম্বাবুয়ে সফরে যেখানে শেষ করেছিলেন চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে ঠিক সেখান থেকেই যেন শুরু করলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। জিম্বাবুয়ে সফরে সেঞ্চুরি তুলে নিলেও এদিন বাংলাদেশ হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) দলের বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

চারদিনের ম্যাচের প্রথমদিনে বাংলাদেশ ‘এ‘ দলের হয়ে ৯৬ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেছেন শান্ত। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি হাতছাড়ার আক্ষেপের দিনে ৫ উইকেটে ২৬০ রান করেছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। এ ছাড়া দলটির হয়ে সাদমান ইসলাম ৫৮ করেছেন।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে এদিন টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার সাইফ হাসান। ১৯ বলে ১৫ রান করা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানকে ফেরান পেসার সুমন খান।

এরপর তিনে নেমে সাদমানের সঙ্গে দারুণ এক জুটি গড়েন শান্ত। তাঁদের দুজনের জুটি থেকে আসে ১২৩ রান। হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পর সাদমান ফিরলে ভাঙে তাঁদের এই জুটি। ১৩৩ বলে ৫৮ রান করা বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে আউট করেছেন স্পিনার হাসান মুরাদ।

থিতু হতে পারেননি চারে নামা মোহাম্মদ মিঠুন। বাংলাদেশ ‘এ’ দলের অধিনায়ক সাজঘরে ফিরেছেন ২৬ বলে ৯ রান করে। দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা শান্ত প্যাভিলিয়নের পথে হেঁটেছেন সেঞ্চুরি হাতছাড়া করার আক্ষেপ নিয়ে। ৯৬ রান করা বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে ফেরান মাহমুদুল হাসান।

পাঁচে নামা ইয়াসির আলি রাব্বি ২১ রান করে আউট হলেও অপরাজিত রয়েছেন ইরফান শুক্কুর ও মুনিম শাহরিয়ার। যেখানে শুক্কুর ২৮ এবং মুনিম অপরাজিত ১৫ রানে। এইচপি দলের হয়ে একটি করে উইকেট নিয়েছেন মাহমুদুল, সুমন, রেজাউর রহমান এবং মুরাদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: বাংলাদেশ ‘এ’ দল- ২৬০/৫ (ওভার ৯০) (শান্ত ৯৬, সাদমান ৫৮, শুক্কুর ২৮*, ইয়াসির ২১, শাহরিয়ার ১৫*, মিঠুন ৯, সাইফ ১৫, মাহমুদুল ১/২৪, মুরাদ ১/৪০, সুমন ১/৪২, রেজাউর ১/৬৮)

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.