শারীরিক অবস্থার অবনতি, আইসিইউতে রুবেল

দীর্ঘদিন ধরে ব্রে’ইন টিউমারে আ’ক্রা’ন্ত বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেলের শা’রীরিক অবস্থার অব’নতি ঘটেছে। বুধবার (১৩ অক্টোবর) রাতে তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়েছে।

বর্তমানে আইসিইউতে রুবেলের চিকিৎসা চলছে, চিকিৎসকদের নি’বিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি। ব্রে’ন টিউ’মারের কারণে বিগত কয়েক মাস ধরে কেমোথেরাপি চলছিল তার। রুবেল একসময় খেলেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলে। জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লেও ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি ছিলেন শীর্ষস্থানীয় মুখ। ২০১৯ সালে ব্রে’ইন (মস্তিষ্কে) টি’উমার ধরা পড়লে মাঠ থেকে ছি’টকে পড়েন মোশাররফ রুবেল।

চিকিৎসা নিয়ে প্রায় সেরে উঠলেও নতুন করে টিউ’মার ধরা পড়ে রুবেলের মস্তি’ষ্কে। ম’স্তিষ্কের মত স্প’র্শকাতর স্থানে নতুন করে টিউমার ধরা পড়ায় শ’ঙ্কায় পড়ে যায় রুবেলের জীবন। জীবন-মৃ’ত্যুর স’ন্ধিক্ষণে থাকা ৩৯ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নিয়ে আসার পর ক্রিকেটে ফেরার চেষ্টাও করেছিলেন। তবে আবারও টি’উমার ধরা পড়লে থ’মকে যায় মাঠের পদচারণ।

অ’স্ত্রোপচারের পর থেকে কথা বলেন ধীরগতিতে, থেমে থেমে। মাঝেমাঝে কথা জড়িয়ে যায়, অস্পষ্ট লাগে একসময়ের স্বল্পভাষী ও হাস্যজ্বল এই ক্রিকেটারের ভাষা। ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ার প্রাক্বালে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) মত বড় মঞ্চে খেলেছেন রুবেল।

এরপর চিকিৎসার জন্য দৌড়ঝাঁপ করতে করতে সর্বস্বান্ত হওয়ার জোগাড়। একসময় নিজের ফ্ল্যাটও বিক্রি করতে চেয়েছিলেন। মোশাররফ হোসেন রুবেল বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি যথেষ্ট সফল একজন ক্রিকেটার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১১২ ম্যাচে তার ঝুলিতে ৩৯২ উইকেট। ব্যাট হাতে দুইটি শতক ও ১৬টি অর্ধশতকে ৩৩০৫ রান তার সংগ্রহে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.