শেষ হচ্ছে রোনালদোর ম্যানইউ অধ্যায়!

দ্বিতীয় দফায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিয়ে শান্তিতে নেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। একের পর এক অপ্রত্যাশিত ঘটনা মানতে পারছেন না তিনি। এমতাবস্থায় নির্দিষ্ট চুক্তির আগেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটি ছাড়তে পারেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। ইংল্যান্ডের শীর্ষস্থানীয় প্রচারমাধ্যম দ্য সানকে এমনটাই জানিয়েছে রোনালদোর এক ঘনিষ্ঠ সূত্র।

গত গ্রীষ্মকালীন দলবদলে জুভেন্টাস থেকে দুই বছরের চুক্তিতে রোনালদোকে দলে ভেড়ায় ম্যানইউ। নিজেদের পুরনো তারকাকে আরও একবার পেয়ে মহাখুশি ছিল রেড ডেভিল শিবির। তবে নানা ঝামেলায় জড়িয়ে অল্প সময়ের মধ্যেই ক্লাবে নিজের অবস্থান তিক্ত করেছেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী খেলোয়াড়।

বিভিন্ন ইউরোপিয়ান সংবাদমাধ্যমের দাবি, সতীর্থদের সাথে কোনোভাবেই রসায়ন হচ্ছে না রোনালদোর। দ্বিতীয় দফায় ম্যানইউতে যোগ দিয়ে গত ছয় মাসেই ইংলিশ ফরোয়ার্ড ম্যাসন গ্রিনউডের সাথে কয়েকবার কথার লড়াইয়ে দেখা গেছে ক্লাবটির সবচেয়ে বড় এই তারকাকে।

সমস্যাটা সেখানেই সীমাবদ্ধ থাকেনি। কিছুদিন আগে স্কাই স্পোর্টসের জনপ্রিয় সাংবাদিক গ্যারি নেভিল জানিয়েছেন, হ্যারি মাইগুইরের সাথেও বনিবনা হচ্ছে না রোনালদোর। কেউ কারও ছায়া পর্যন্ত দেখতে পারছেন না। সব মিলিয়ে নেতৃত্বের ইস্যুতে এই দুজনের মধ্যে সংঘর্ষটা নাকি চরমে পৌঁছছিল। যদিও শেষ পর্যন্ত অধিনায়কত্ব পেয়েছেন পর্তুগীজ ফুটবলার।

ব্যর্থতার দায়ে ওলে গুনার সুলশার বরখাস্ত হওয়ার পর ম্যানইউর দায়িত্ব পান রালফ র‌্যাগনিক। সাবেক আরবি লাইপজিগ বস হট সিটে বসায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে রোনালদোর জন্য। শুরুতেই বেশ কিছু খেলোয়াড়ের প্রতি অনাগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন জার্মান কোচ। এই তালিকায় আছে ৩৬ বছর বয়সী রোনালদোর নামও।

অবস্থা প্রতিকূলে চলে যাওয়ায় ক্লাব ছাড়ার কথা চিন্তা করছেন রোনালদো। দ্য সানের দাবি, ইতোমধ্যে ইউরোপের নামকরা এজেন্ট জর্জ মেন্ডেসকে ম্যানচেস্টারে ডেকেছিলেন সাত নম্বর জার্সিধারী। সব পরিস্থিতি তুলে ধরে মেন্ডেসকে দলবদলের বিষয়েও অবগত করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক অধিনায়ক।

দ্য সানকে রোনালদোর ওই সূত্র জানিয়েছে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে রোনালদোর অনেক সমস্যা হচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে তিনি চাপ অনুভব করছেন। দ্বিতীয় দফায় ক্লাবটিতে যোগ দিয়ে সফল হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি তাকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.