সতীর্থকে ঘুষি দিয়ে লাল কার্ড পেলেন ব্রাজিলের ডিফেন্ডার (ভিডিও)

খেলোয়াড়কে ঢুস মেরে লাল কার্ড দেখেছেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্কোস দস নসিমেন্তো টেক্সেইরা। শুধু ঢুসই মে’রেই রা’গ কমেনি তার, কয়েকটি ঘু’স্ও দিয়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার। তবে অদ্ভূত ব্যাপার হচ্ছে- প্রতিপক্ষের নয়; নিজ দলের খেলোয়াড় কেরেম আকতুরকোহলুরকে এমন শা’রীরি’ক আ’ঘা’ত করেছেন এই ডিফেন্ডার।

ব্রাজিলের ২৫ বছর বয়সি এই ডিফেন্ডার মার্কাও নামেই বেশি পরিচিত। তুর্কি লিগে সোমবার রাতে গিরেসুনস্পোরের বিপক্ষে গ্যালা’তাসারাই’য়ের ম্যাচে এই অদ্ভূত কাণ্ড ঘটিয়েছেন মার্কাও। ম্যাচের ৬১ মিনিটের সময় কোনো একটি কারণে কেরেমের ওপর ক্ষে’পে যান মার্কাও। এরপরই তেড়ে গিয়ে সতীর্থকে ঘু’সি মা’রেন। পাশাপাশি মাথা দিয়ে ঢু’শও দেন মার্কাও। এ সময় দলের অন্যান্য খেলোয়াড়রা দৌড়ে এসে মার্কাওকে দূরে সরিয়ে নেয় ও পরিস্থিতি সামাল দেন তারা।

ঘটনার পর পর ভিডিও এসিসট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) সাহায্য নিয়ে মার্কাওকে লাল কার্ড দেখিয়েছেন মাঠের রেফারি। এ ঘ’টনায় অবশ্য ম্যাচে প্রভাব ফেলেনি। ২-০ ব্যবধানে গ্যালাতাসারাই হারিয়েছে গিরেসুনস্পোরকে। দল জেতার সুসংবাদের পর হয়তো দু:সংবাদ শুনতে হবে মার্কাওকে। শুধু লাল কার্ডই চূড়ান্ত শাস্তি নয় তার।

তুর্কি লিগের নিয়মানুযায়ী, বিষয়টিকে শা’রীরি’ক লা’ঞ্ছনা হিসেবে গণ্য করা হলে ন্যুনতম ৫ থেকে সর্বোচ্চ ১০ ম্যাচের নিষে’ধাজ্ঞা পেতে পারেন মার্কাও। এছাড়া ক্ষমাও চাইতে হবে তাকে। ম্যাচ শেষে দলের কোচ ফাতিহ তেরিম বলেছেন, ‘পরিস্থিতির গুরুত্ব বি’বেচনায় যথাযথ পদক্ষেপ নেবে ক্লাব। নিজের ব্যবহারের জন্য কে’রেম ও অন্যান্য খেলোয়াড়দের কাছে ক্ষমা চাইবে মার্কাও।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.