সাকিবদের সাথে কাজ করা হচ্ছে না হেরাথের

বাংলাদেশের নতুন স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে শ্রীলঙ্কার সাবেক স্পিনার রঙ্গনা হেরাথের নাম শোনা যাচ্ছিল। তাঁর সঙ্গে আলাপ-আলোচনাও চালাচ্ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কিন্তু শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট ওয়েবসাইট আইল্যান্ড ক্রিকেট জানিয়েছে, সে আলোচনা ব্যর্থই হতে চলেছে।

লঙ্কান স্পিনারের বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট ক্ষীণ। আইল্যান্ড ক্রিকেট জানিয়েছে, হেরাথ পারিশ্রমিক হিসেবে দৈনিক ১ হাজার ৫০০ ডলার দাবি করেছিলেন। তাঁর শর্ত ছিল তিনি বাংলাদেশ জাতীয় দলের সঙ্গে বছরে ১২০ দিন কাজ করবেন। কিন্তু বিসিবি হেরাথের এ দাবির সঙ্গে একমত হতে পারছে না।

বিসিবির চাওয়া খণ্ডকালীন নয়, দীর্ঘ মেয়াদে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সঙ্গে কাজ করুন হেরাথ। এ মুহূর্তে দীর্ঘ মেয়াদে একজন স্পিন বোলিং কোচ খুঁজছে বিসিবি। ২০১৯ সালে এ পদে নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ও বাঁহাতি স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।

কিন্তু কিউই স্পিনার খণ্ডকালীন দায়িত্বই পালন করেছেন। তাঁর সঙ্গে চুক্তিই ছিল, তিনি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সঙ্গে ১০০ দিন কাজ করবেন। কাজের হিসাবে তাঁর বেতনও ছিল অনেক বেশি। কিন্তু ভেট্টোরিকে খুব একটা পায়নি বাংলাদেশের ক্রিকেট।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ছিল এর পেছনে বড় একটা বাধা। গত মার্চে নিউজিল্যান্ড সফরে ভেট্টোরি বাংলাদেশ দলের সঙ্গে শেষবারের মতো কাজ করেছেন। করোনাকালে নিউজিল্যান্ড থেকে বাংলাদেশে আসা-যাওয়ার সমস্যার কারণে ভেট্টোরির সঙ্গে চুক্তি বাড়ায়নি বিসিবি।

এ মুহূর্তে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে অন্তর্বর্তীকালের জন্য কাজ করছেন সোহেল ইসলাম। তবে বিসিবি চায় দীর্ঘ মেয়াদে দেশের বাইরে থেকে একজন স্পিন বোলিং কোচ নিয়োগ দিতে। কিছুদিন আগে বিসিবি পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান জানিয়েছিলেন,

এশিয়ার ক্রিকেট খেলুড়ে শীর্ষ দেশগুলোর একটি থেকেই স্পিন বোলিং কোচ আনতে চায় বিসিবি। হেরাথ ছাড়াও আরও কয়েকজনের সঙ্গে বিসিবি আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

ভেট্টোরির আগে বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে বেশ কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার কাজ করে গেছেন। এঁদের মধ্যে আছেন পাকিস্তানের সাবেক অফ স্পিনার সাকলায়েন মুশতাক ও ভারতের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার সুনীল যোশী

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.