সাবরিনা-আরিফসহ ৮জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট।

জে’কেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী ও সিইও আরিফুল হক চৌধুরীসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে চা’র্জশি’ট দাখিল করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। করো’নার ভুয়া রি’পোর্ট দেয়ার অ’ভিযোগে দায়েরকৃত প্র’তারণার মা’মলায় আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে এ চা’র্জশি’ট দাখিল করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক লিয়াকত আলী।

চা’র্জশি’টে সাবরিনা ও আরিফকে মূল হোতা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিরা প্র’তারণা ও জা’লিয়া’তি করতে তাদের সহযোগিতা করেছে বলে চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়। অ’ভিযুক্ত অন্য আসামিরা হলেন, আবু সাঈদ চৌধুরী, হুমায়ূন কবির হিমু, তানজিলা পাটোয়ারী, বিপ্লব দাস, শফিকুল ইসলাম রোমিও ও জেবুন্নেসা। উল্লেখ্য, করো’নার ভু’য়া রি’পোর্ট প্রদানের অ’ভিযোগে ১৫ জুন কামাল হোসেন নামে এক ব্যাক্তি বাদি হয়ে তেজগাঁও থানায় এ মা’মলা করেন।

আরো পড়ুন:- মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে কটুক্তির অভিযোগে গ্রে’ফতার সেই শিক্ষিকার জামিন: প্রয়াত আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তির অভিযোগে গ্রে’ফতার হওয়া বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সাময়িক ব’হিষ্কৃত শিক্ষিকা সিরাজুম মুনিরা হাইকোর্টে জামিন পেয়েছেন। তিনি আইসিটি আইনে করা একটি মামলায় গ্রে’ফতার ছিলেন।

বুধবার (৫ আগস্ট) বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসানের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ সিরাজুম মুনিরার জামিন আদেশ দেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জাহাঙ্গির আলম।

এর আগে গত ১৩ জুন লাইফ সাপোর্টে থাকা মোহাম্মদ নাসিম মা’রা যান। পরে নাসিমের মৃ’ত্যু নিয়ে বে’রোবি’র বাংলা বিভাগের প্রভাষক সিরাজুম মুনিরা নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে ক’টুক্তি করে স্ট্যাটাস দেন বলে অভিযোগ ওঠে। স্ট্যাটাস দেওয়ার কিছুক্ষণ পরেই তিনি তা ডি’লিট করেন তিনি। তবে ডিলেট করার পূর্বেই তার দেওয়া পোস্টের স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এরপর তার বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের গত ১৪ জুন মা’মলা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরপর একইদিন রাত ১২টায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সর্দারপাড়া থেকে গ্রে’ফতার করে পুলিশ। পরে আদালত রিমান্ড শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এদিকে গত ১৭ জুন তাকে সাময়িক বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরপর গত ২৩ জুলাই তিনি জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানালে আজ তা মঞ্জুর করেন হাইকোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *