সিরিজসেরা হয়ে যা বললেন সাকিব

সিরিজসেরা হয়ে যা বললেন সাকিব

তিন ম্যাচের সিরিজে তার উইকেট ৮টি। আর রান ১৪৫। উইকেট শিকারের বেলায় সর্বোচ্চ আর রানের দিক দিয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রাহক।এমন পারফরম্যান্সের কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে সিরিজসেরা হয়েছেন সাকিব আল হাসান।

সাকিবের সিরিজসেরার খবরের চাইতেও বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য তুষ্টির বিষয় – স্বরূপে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।কারণ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরে সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারছিলেন না সাকিব। আইপিএলে ৩ ম্যাচ খেলে করেন মাত্র ৩৮ রান!

এরপর শ্রীলংকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে তার ব্যাট থেকে আসে মাত্র ১৯ রান! রান পাননি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও। ৮ ম্যাচে সর্বসাকুল্যে ১২০ রান করেন তিনি।জিম্বাবুয়ে সফরে একমাত্র টেস্টে সাকিব ফেরেন মাত্র ৩ রান করে।

সেই সাকিব ব্যাটে-বলে দুর্দান্তভাবে জ্বলে উঠলেন ওয়ানডে সিরিজে। স্বস্তির নিঃশ্বাস ছেড়েছে সাকিবভক্তরাসহ বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।পুরস্কার বিতরণীর মঞ্চে সিরিজসেরা হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় সাকিব বলেন, ‘ভালো লাগছে। দলে অবদান রাখতে পারা সবসময়ই স্পেশাল। যেভাবে অবদান রাখতে পেরেছি, তাতে আমি খুশি। তবে ভালোর তো শেষ নেই। সেদিক থেকে আরও ভালো করতে পারলে আরও বেশি ভালো লাগত। তবে যেভাবে সিরিজটি গেল, সেদিক থেকে খুশি।

পুরস্কার বিতরণীর মঞ্চে সিরিজসেরা হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় সাকিব বলেন, ‘ভালো লাগছে। দলে অবদান রাখতে পারা সবসময়ই স্পেশাল। যেভাবে অবদান রাখতে পেরেছি, তাতে আমি খুশি। তবে ভালোর তো শেষ নেই। সেদিক থেকে আরও ভালো করতে পারলে আরও বেশি ভালো লাগত। তবে যেভাবে সিরিজটি গেল, সেদিক থেকে খুশি।

এমন সাফল্যে দলের কৃতিত্ব দিতেও ভুললেন না সাকিব। বললেন, ‘জিম্বাবুয়েতে এসে জিম্বাবুয়েকে ৩-০ ব্যবধানে হারানো সহজ নয়। এই তিন ম্যাচে যেভাবে খেলেছি, দলের তাতে কৃতিত্ব প্রাপ্য।এখান থেকে একের পর এক সিরিজে উন্নতি করতে থাকলে আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য অর্জন হবে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.