সোহেল তাজের উদ্দেশ্যে কড়া স্ট্যাটাস আসিফ নজরুলের

নায়িকা পরীমণিকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা যেনো শেষ নেই। কা’রাগার থেকে মুক্তি মিললেও তাকে ঘিরে বিভিন্ন মহলে পক্ষে-বিপক্ষে চলছে তর্ক’বিতর্ক। কখনও তার হাতের বার্তা কখনওবা ফেসবুকে পোস্ট করা ছবি নিয়ে চলছে তুমুল বি’তর্ক। সিগা’রেট হাতে তার একটি ছবির সমালোচনা করে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ লিখেছেন,

একজন সেলিব্রেটির কাছ থেকে এরকম অশোভন আচরণ কাম্য নয়- আমাদের ছেলে মেয়েদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে……। হাতে আজেবাজে কথা লিখে রাত বিরাতে ঘুরে বেরিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেয়া নারী জাতিকে অবমাননা করা ছাড়া আর কিছু না- নারী পুরুষ যেই হোক না কেন এই ধরণের আচরণ সমাজকে নেতিবাচক ভাবে প্রভাবিত করে।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে নতুন দুটি ছবি আপলোড করেন পরীমণি। সেখানে দেখা যাচ্ছে- সিগা’রেট হাতে ক্যামেরায় পোজ দিয়েছেন তিনি। পরীর পরনে সাদা-কালো রঙের টপস, খোলা চুলে চোখে চশমা, পায়ে পরেছেন কে’ডস। সেখানে তার হাতের ‘…ক মি মোর’ লেখাটি স্পষ্ট। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন- ‘সি’গারেট স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষ’তিকর’।

পরীর মতো একজন ‘পাবলিক ফিগার’ এর এমন আ’চরণ ভালোভাবে নেয়নি অনেকেই। পরীর ছবিগুলো নিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করে গুণী রাজনীতিবিদ এবং বাংলাদেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ লিখেছেন- ‘একজন সেলেব্রিটির কাছ থেকে এরকম অশো’ভন আ’চরণ কাম্য নয়। আমাদের ছেলে-মেয়েদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

বর্তমান সময়ে ডিজিটাল ডিভাইসের সঙ্গে জড়িয়েই বড় হচ্ছে শিশু-কিশোররা। তারা ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহারে পটু, ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাদের দৃষ্টি বিদ্যমান। এমন একটি স্পর্শকাতর সময়েই হাতের তালুতে মেহেদি দিয়ে আঁকা ‘মিডল ফি’ঙ্গার’ প্রদর্শন করে ভ’য়াব’হ অ’শ্লীলতার ইঙ্গিত দিয়েছেন পরীমণি। যা নিয়ে নানান মহলে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

শিশু-কিশোররা বয়জ্যেষ্ঠ কাউকে কিছু করতে দেখে সেটি শিখে তা নিজেও প্রদর্শন করলে চরম বিব্র’তকর পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে বলে মনে করছেন দেশের সচেতন নাগরিক ও অভিভাবকরা। তাছাড়া পরীমণি একজন নায়িকা হিসেবে, তিনি ‘পাবলিক ফি’গারও’ বটে! তার এমন আচরণের প্রভাবে শিশু-কিশোররা অসময়ে যৌন আচরণ প্রদর্শন করার শ’ঙ্কা রয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। যা আমাদের আন্ত:সামাজিক ও কৃষ্টি-কা’লচারের সঙ্গে কোনভাবেই যায় না।

বিজ্ঞজনরা বলছেন, দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের একজন শিল্পীর এমন আ’চরণে বড়দের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ হারিয়ে ফেলতে পারে শিশু-কিশোররা। তাই সেলিব্রেটি হিসেবে পরীমণিকে সতর্ক করে দায়িত্বশীল আচরণ প্রদর্শন করতে মতামত দিয়েছেন বিজ্ঞজনরা। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আরটিভি নিউজ কথা বলে আন্তর্জাতিক বার অ্যাসোসিয়েশন প্রদত্ত “আইবিএ প্রোবোনো অ্যাওয়ার্ড, ২০২০” অর্জনকারী বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসানের সঙ্গে।

এই আইনজীবী বলেন, ‘প’র্নোগ্রা’ফি আইন-২০১২ সালের ২ এর ‘গ’ উপধারায় ‘প’র্নোগ্রা’ফি’ এর সজ্ঞায় বলা হয়েছে- ‘যৌ”ন উত্তেজনা সৃষ্টিকারী কোন অ’শ্লীল সংলাপ, অভিনয়, অ’ঙ্গভ’ঙ্গি, ন”গ্ন বা অ’র্ধন”গ্ন নৃত্য যাহা চলচ্চিত্র, ভিডিও চিত্র, অডিও ভিজ্যুয়াল চিত্র, স্থির চিত্র, গ্রাফিকস বা অন্য কোন উপায়ে ধারণকৃত ও প্রদর্শনযোগ্য এবং যাহার কোন শৈল্পিক বা শিক্ষাগত মূল্য নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ধরণের অপ’রাধে’র শাস্তি সম্পর্কে একই আইনের ৮ ধারার ৪ উপধারায় বলা হয়েছে- ‘কোন ব্যক্তি প”র্নোগ্রা’ফি প্রদর্শনের মাধ্যমে গণ’উপদ্রব সৃষ্টি করিলে তিনি অপরাধ করিয়াছেন বলিয়া গণ্য হইবেন এবং উক্তরূপ অপরা’ধের জন্য তিনি সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত সশ্রম কা’রাদণ্ড এবং ১ লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডে দ’ণ্ডিত হইবেন। পর্নোগ্রাফি আইনের অপরাধসমূহ আমলযোগ্য এবং অ-জামিনযোগ্য অর্থাৎ জামিনযোগ্য নয়।’

আইনজীবী ইশরাত হাসান বলেন, ‘এখানে নায়িকা পরীমণি প”র্নোগ্রা’ফি আইনের ‘গ্রা’ফিকস বা অন্য কোন উপায়ে ধারণকৃত ও প্রদর্শনযোগ্য এবং যাহার কোন শৈল্পিক বা শিক্ষাগত মূল্য নেই’ সজ্ঞামতে অপরাধ করেছেন বলে মনে করছি। তবে কেউ এ বিষয়ে থানায় কিংবা আদালতে অভিযোগ না করলে আইনের প্রয়োগ বিচার পর্যন্ত গড়াবে কেমন করে?

সোহেল তাজের ওই স্ট্যাটাসের বিপরীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক, লেখক আসিফ নজরুল তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘পরীমনি সি’গারেট খাচ্ছে বা আপ’ত্তিকর কথা বলছে সেটি নিয়ে সোহেল তাজকে সমালোচনামূখর দেখলাম।

এটি উনি করতেই পারেন। কিন্তু যারা দেশই গিলে খাচ্ছে বা ক্ষমতায় থাকার সুযোগে আরো বহুগুন অ’শালীন কথা বলছে তাদের বিরুদ্ধে সমালোচনা নেই কেন উনার? সোহেল তাজ, আপনি মহান নেতা তাজউদ্দিন সাহেবের পুত্র। পরীমনি না, আরো বড় ক্যা’নভাসের দিকে তাকান। নিজের শরীর শুধু না, দেশ গড়ার চিন্তা করেন।’সূত্র: আরটিভি নিউজ

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.