স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলে জামাইকে মারধর করলেন শাশুড়ি

ঠাকুরগাঁওয়ে বিয়ে করার অপরাধে গাছে বেঁধে জামাইকে মারধরের ঘটনায় শাশুড়ি শিরিনা আক্তারকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে আটক করা হয়। এর আগে সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার ভাঙাবাড়িতে বউয়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে নি’র্যা’তনের শি’কার হয় নাসিরুল।

নি’র্যা’তনের সেই ভিডিও এরই মধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। নি’র্যাত’নের শিকার জামাই ওই এলাকার খলিলুর ইসলামের ছেলে নাসিরুল। জানা গেছে, নাসিরুলের সঙ্গে একই এলাকার করিমুলের মেয়ে কেয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ দিন সম্পর্কে থাকার পর তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

এক পর্যায়ে পরিবারকে না জানিয়ে তারা পালিয়ে বিয়ে করেন। এ ঘটনায় মেয়ের পরিবার ছেলের পরিবারকে মেয়েকে ফিরিয়ে দিতে চাপ দিতে থাকে। এমনকি তাদের বিয়ে মেনে নেয়ারও প্রতিশ্রুতি দেয়। মেয়ের পরিবারের অবস্থা ভালো হওয়ায় ছেলের পরিবার ভীত হয়ে ছেলেকে ফিরে আসার আকুতি জানায়।

মেনে নেয়ার প্রতিশ্রুতি পেয়ে ছেলে মেয়েকে তার পরিবারের কাছে ফেরত দেয়। গত ২০ সেপ্টেম্বর বিকেলে বউয়ের সঙ্গে দেখা করতে শ্বশুরবাড়ি যায় নাসিরুল। এ সময় মেয়ের বাবা-মা নাসিরুলকে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নি’র্যাত’ন করতে থাকে।

এ সময় ছেড়ে দেয়ার আকুতি জানিয়েও রক্ষা পায়নি। অবশেষে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। রানীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ ইকবাল এ তথ্যটি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় শাশুড়ি শিরিনা আক্তারকে আটক করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.