স্ত্রী প্রতিদিন গোসল করেন না, তাই ডিভোর্স চাইলেন স্বামী

আজকাল তুচ্ছ কারণেও বিয়ে ভেঙে যায়। তবে এই ব্যক্তি যে কারণে বি’চ্ছেন চাইলেন, তা শুনে অনেকেই অবাক হতে পারেন। ওই ব্যক্তির অভিযোগ, তার স্ত্রী প্রতিদিন গোসল করেন না। এজন্য বি’চ্ছেদ চেয়ে’ছেন তিনি। বিয়ে টিকিয়ে রাখার জন্য তার স্ত্রী নারী সুরক্ষা সেলে অ’ভিযোগ করেন। এরপরই ভারতের উত্তর প্রদেশের ওই ঘ’টনা সামনে আসে বলে শুক্রবার একটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

নারী সুরক্ষা সেলের একজন কাউন্সিলর জানান, ওই নারী আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। অভিযোগে ওই নারী উল্লেখ করেছেন, তিনি প্রতিদিন গোসল করেন না। এজন্য তার স্বামী তাকে তিন তা’লাক দি’য়েছেন। তাদের বিয়ে টিকিয়ে রাখার জন্য আমরা ওই দম্পতি ও তাদের বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা আলোচনা করেছি।

ওই কাউন্সিলর আরও জানান, মেয়েটি তার বিয়ে টিকিয়ে রাখতে চেয়েছেন। তবে কাউন্সেলিং চলাকালে মেয়েটির স্বামী বারবার বিয়ে ভেঙে দিতে চেয়েছেন। তিনি বি’চ্ছেদ পেতে আমাদের সাহায্যও চেয়েছেন। ওই ব্যক্তি নারী সুরক্ষা সেলকে জানিয়েছেন, গোসল করতে বলায় প্রতিদিনই স্ত্রীর সঙ্গে তার ঝ’গড়া হতো।

তবে বিয়ে টিকিয়ে রাখার জন্য ওই ব্যক্তিকে নারী সুরক্ষা সেলের কাউন্সিলর বুঝিয়েছেন, যে সমস্যার সমাধান খুব সহজেই করা যায়, সেই সমস্যার কারণে বিয়ে ভেঙে দেওয়া ঠিক হবে না। এছাড়া বিয়ে ভেঙে যাওয়ার বিষয়টি তাদের সন্তানের ওপরও প্রভাব ফেলবে বলে ওই ব্যক্তিকে বুঝিয়েছে নারী অধিকার সুরক্ষা সেল।

বি’চ্ছেদের বিষয়টি ফের ভেবে দেখার জন্য ওই দম্পতিকে সময় দিয়েছে নারী সুরক্ষা সেল। তবে স্ত্রীর প্রতি কোনো স’হিং’স আচরণ না করায় ওই ব্যক্তির বি’রুদ্ধে অন্য কোনো আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার পথ খোলা নেই বলে সেলের সদস্যরা জানিয়েছেন। কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমেই বিষয়টির সমাধানের চেষ্টা করছেন তারা।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.