৩ দিন অনশনের পর নতুন স্বামী পেলেন ১ সন্তানের জননী

বগুড়ার শাজাহানপুরে তিন দিন অনশনের পর পরকীয়া প্রেমিকের সাথেই বিয়ে হয়েছে এক গৃহবধূর। গত তিন বছর ধরে স্বামীর ঘরে থেকে পরকীয়া আর গোপনে প্রেমিকের সাথে সকল সম্পর্কের তথ্য ফাঁস করে তিন দিন ধরে বিয়ের দাবিতে অনশন করছিলেন উপজেলার দাড়িগাছা গ্রামের জাহিদুর রহমানের মেয়ে জাহানারা বেগম (২৫)।

তিনি ওই গ্রামের এমাদাদুল হকের স্ত্রী ছিল এবং এক সন্তানের জননী। সোমবার বিয়ের আগে স্বামী এমদাদুল হককে তালাক দেন জাহানারা। বিষয়টি নিয়ে সোমবার গ্রাম্য মাতব্বরদের নিয়ে খরনা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য তোতা মিয়া এক সালিশ বৈঠকের আয়োজন করেন।

ওই বৈঠকে তার পরকীয়া প্রেমিক তালেবের সাথে বিয়ে পড়িয়ে দেয়া হয়। স্বামী বদলের এ ঘটনায় নারীর পরকীয়ার বিজয় হয়েছে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। এ বিষয়ে ওই ইউপি সদস্য তোতা মিয়া জানান, দীর্ঘ দিন দুজনে শারীরিক সম্পর্ক ও পরকীয়ায় আসক্ত হওয়ায় বিয়ে পড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

এ দিকে বিয়ের খবর জানার পর কাঁদছে তার স্বামী ও সন্তান। স্থানীয়রা জানান, এতে করে অপকর্ম আর পরকীয়াকে বিজয়ী করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জাহানারা বেগম জানান, এই বিয়েতে খুশি তিনি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.