৭০ রানের টার্গেটে ফিরলেন শান্ত ক্রিজে মুশফিক, দেখুন লাইভ

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ডার্ক ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে আবাহনীর ৭০ রানের নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রথমে ব্যাট করে পারটেক্স নির্ধারিত ২০ ওভারে সংগ্রহ করেছে ৫ উইকেটে ১২০ রান। পারটেক্সের ইনিংসের পরেই নামে তুমুল বৃষ্টি। বৃষ্টির কারণে আবাহনীর ইনিংস থেকে কাটা হয় ১০ ওভার।

লক্ষ্য কমিয়ে দেওয়া হয় ৫১ রান। পারটেক্সের একজন বোলার সর্বোচ্চ দুই ওভার বল করতে পারবেন। আবাহনী পাওয়ার প্লে পাবে প্রথম তিন ওভার। ইতোমধ্যেই ডিএল মেথডে নির্ধারিত নতুন লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই নাজমুল হোসেন শান্তর উইকেট হারিয়েছে আবাহনী। এখন ব্যাট করছেন নাঈম শেখ ও মুশফিকুর রহিম।

লাইভ দেখুন

আরও পড়ুন: দারুণ সূচনার পর ব্রাদার্সের মিডল অর্ডারে বিপর্যয় ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ব্রাদার্স ইউনিয়ন দারুণ সূচনা পেলেও মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় তাদের বড় স্কোরের স্বপ্ন শেষ হয়ে গিয়েছে। দুই ওপেনারের পর টানা চার ব্যাটসম্যান এক অঙ্কের ঘরে থেকেই সাজঘরে ফিরেছেন।

টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রাইম দোলেশ্বর। ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ঝড়ো সূচনা এনে দেন ওপেনার মিজানুর রহমান। শামীম পাটোয়ারির করা প্রথম ওভারে রান হয় ১২। পাওয়ারপ্লে তে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৪৮ রান তুলে শক্ত অবস্থানে ছিল ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

সপ্তম ওভারে প্রাইম দোলেশ্বরকে প্রথম সাফল্য এনে দেন স্পিনার এনামুল হক জুনিয়র। ডাউন দ্য উইকেটে এসে তুলে মারতে গিয়ে মিজান ক্যাচ দেন রেজাউর রহমানের হাতে। ২৫ বলে ৩১ রান করেন মিজান। পরের ওভারেই স্পিনার শরিফুল্লাহর বলে জসিম উদ্দিন অফ স্টাম্পের বাইরের বল তুলে কাভার ড্রাইভ খেলতে গিয়ে বাউন্ডারির কাছে থাকা শামীম পাটোয়ারির হাতে ক্যাচ দেন।

৩ বলে ২ রান করে ফিরে যান জসিম। নিজের পরের ওভারে শরিফুল্লাহ শিকার করেন মাইশুকুর রহমানের উইকেট। এরপর এক বলে এক রান করে রান আউট হন জাহেদুজ্জামান সাগর। মিডল অর্ডারের তিন, চার ও পাঁচ নম্বর ব্যাটসম্যান মিলে মাত্র চার রান করলে চরম বিপদে পড়ে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

দলীয় ৮৪ রানের মাথায় রাহাতুল ফেরদৌস (৫) ফিরেন রেজাউর রহমানের অফ স্টাম্পের বাইরের বল খোঁচা দিয়ে, দারুণ ক্যাচ ধরেন উইকেটরক্ষক ইমরান উযজামান। তবে এক প্রান্ত আগলে রাখেন ওপেনিংয়ে নামা জুনায়েদ সিদ্দিকী। ষষ্ঠ উইকেটে আলাউদ্দিন বাবুর সঙ্গে যোগ করেন ২২ রান।

জুটিতে ২০ রানই ছিল ঝড়ো ব্যাটিং করা বাবুর। তার ইনিংস দীর্ঘ করতে দেননি কামরুল ইসলাম রাব্বি। ১১ বলে ২০ রান করে রাব্বির শিকার হয়ে ফিরে যান বাবু। নিজের পরের ওভারে এসে জুনায়েদকে বোল্ড করেন রাব্বি। ৫১ বলে ৪৮ রান করেন জুনায়েদ।

তার ইনিংসে ছিল ৪ চার ও ১ ছক্কা। এরপর শাহজাদা ও সুজন হাওলদার দলের ইনিংসের দারুণ সমাপ্তি টানার চেষ্টায় নামলে সেখানে বাধা হয় বৃষ্টি। বৃষ্টির কারণে বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত খেলা হয়েছে ১৮ ওভার ৪ বলের। ব্রাদার্স ইউনিয়নের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১২৭ রান।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.