৭৬, ৭০, ৭৬, ৭৩ অবশেষে শতকের দেখা পেলেন বাংলার গেইল খ্যাত ব্যাটার

জাতীয় ক্রিকেট লিগ এনসিএলে শেষ তিন ম্যাচে চারটি অর্ধশতক। তার ইনিংসগুলো ছিল ৭৬, ৭০, ৭৬ এবং ৭৩। অর্ধশতক তুলে নিলেও শতকের দেখাটাই পাচ্ছিলেন না বরিশাল বিভাগের ব্যাটার ফজলে রাব্বি। অবশেষে সিলেটে এসে শতক পেলেন, ১৭৩ বলে ১০১* রান করেন ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত এই পারফমার।

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে মারমুখী খেলার ধরনের জন্য সবাই ডাকতেন ‘বাংলার গেইল’ বলে। সুযোগ পেয়েছিলেন জাতীয় দলেও কিন্তু ওইসময় ঠিক কাজটা করতে পারেননি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজের প্রথম দুই ম্যাচেই ফিরেছিলেন শূন্য রানে, তবে এখনো লড়াই করে যাচ্ছেন। এবারের জাতীয় লিগে ফজলে রাব্বির ইনিংসগুলো ৭৬,৭০,২১,৭৬,০,৭৩,১০১*।

আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ড সফরও মিস করছেন তামিম! দীর্ঘ সময় ধরে দলের বাইরে টাইগার ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ভক্তদের দুঃসংবাদ দিয়ে তামিমের মাঠে ফেরার অপেক্ষা বাড়ছে আরও। নেপালের এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল) খেলতে গিয়ে বাঁহাতের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে চোট পান।

যা সেরে উঠতে লাগছে সময়, দিন কয়েক আগে গিয়েছেন ইংল্যান্ডে। সেখানকার চিকিৎসকই দিয়েছেন আরও এক মাসের বিশ্রাম। ফলে আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরও মিস করতে যাচ্ছেন অনেকটা নিশ্চিত। কোনো সার্জারি লাগছেনা অন্তত এটাই হয়তো বড় স্বস্তির বিষয়।

তার চোটের যে ধরণ তা বিশ্রামেই ঠিক হবে বলে মতামত দিয়েছেন ইংল্যান্ডের চিকিৎসক। তামিমের চোটের সর্বশেষ তথ্য জানিয়ে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীস চৌধুরী বলেন, ‘তামিমকে ইংল্যান্ডের যে চিকিৎসক দেখেছেন, দেখে তিনি উনার মতামত দিয়েছেন। এক মাসের বিশ্রাম দিয়েছেন।

তার কোনো সার্জারি লাগছে না। এটা কনসারভেটিভ ম্যানেজমেন্টে সারবে। তবে সময় লাগবে। এটা বিশ্রামেই ঠিক হবে।’ তামিম সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন জিম্বাবুয়ে সফরের ওয়ানডে সিরিজে। এরপর হাঁটুর চোটে দেশে ফেরার পর ছিলেন প্রায় ২ মাসের বিশ্রামে।

মিস করেছেন ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড সিরিজ। পরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকেও নিজেকে সরিয়ে নেন। এরপর সেরে উঠে ইপিএল খেলতে যান সেখানেই চোট পেয়ে প্রাথমিকভাবে এক মাসের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে যান।

কিন্তু পুনর্বাসন কার্যক্রম সেভাবে উন্নতি না হওয়াতে মিস করেন ঘরের মাঠে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ফেরার কথা ছিলো জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) চতুর্থ রাউন্ড দিয়ে যেনো পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের আগেই ফিট হতে পারেন।

কিন্তু চোটের উন্নতি না হওয়াতে যেতে হয়েছে ইংল্যান্ডে। সেখান থেকেই এবার জানা গেলো এক মাসের বিশ্রামের কথা। আর তাতেই মোটামুটি নিশ্চিত আগামী মাসের নিউজিল্যান্ড সফর মিস হচ্ছে এই বাঁহাতি ব্যাটারের। যেখানে দুইটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.