৭ হাজারের বিপরীতে নৌকা পেল ৯২ ভোট!

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ৩, নৌকা ১ ও জাকের পার্টির ১ জন নির্বাচিত হয়েছেন। পাঁচ ইউনিয়নের খাতামধুপুরে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাসুদ রানা পাইলট বাবু। তিনি মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৭ হাজার ৪০৫।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী জুয়েল চৌধুরী পেয়েছেন ৬ হাজার ৯৭৩ ভোট (আনারস)। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হাসিনা বেগম পেয়েছেন মাত্র ৯২ ভোট (নৌকা)। কামারপুকুর ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আনোয়ার হোসেন সরকার পেয়েছেন ৫ হাজার ১৯৯ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীক নিয়ে জিকো আহমেদ পেয়েছেন ৪ হাজার ৯০২ ভোট। বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ইউনিয়ন ডা: শাহাজাদা সরকার নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৬ হাজার ৫৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুল হক পেয়েছেন ৩ হাজার ৮০০ ভোট (মোটরসাইকেল)।

কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হয়েছেন বাংলাদেশ জাকের পার্টি মনোনীত প্রার্থী লানছু হাসান চৌধুরী ৬ হাজার ৩৫৭ ভোট (গোলাপ ফুল)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রভাষক কাজী মনিরুজ্জামান বাদশা ৫ হাজার ৮১১ (মোটরসাইকেল)।

বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন মনিরুজ্জামান সরকার জুন। তিনি ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৫২৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী রওশন হাবিব চৌধুরী পেয়েছেন ৫ হাজার ৩৬৩ ভোট (অটোরিকশা)।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.