৮ বিয়ের পর জানা গেলো নারী এইডসে আক্রান্ত, বিপাকে সাবেক স্বামীরা

বিয়ে করে তিনি সংসার করতেন বড়জোর ১০ থেকে ১৫ দিন। তারপর সুযোগ বুঝে অর্থকড়ি নিয়ে সোজা উধাও হয়ে যেতেন স্ত্রী। এরপর কিছুদিনের বিরতি। আবার অন্য পুরুষ, অন্য বিয়ে, নতুন সংসার। এভাবে গত চার বছরে আটজন স্বামীর ঘর করেছেন ভারতের এক নারী। প্র’তার’ণার দায়ে স্থানীয় পুলিশের হাতে সম্প্রতি গ্রে’ফতার হয়েছেন তিনি। এরপর শারী’রিক পরী’ক্ষায় ধরা পড়েছে, ওই নারী এইচ’আইভি/এ’ইডসে আ’ক্রা’ন্ত।

ঠিক কতদিন ধরে তিনি এ রোগ বয়ে বেড়াচ্ছেন, তা নিশ্চিত নয়। এ কারণে পুলিশ ওই নারীর সাবেক স্বামীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। সুস্থতা নিশ্চিত করতে তাদেরও মেডিক্যাল পরীক্ষা করাতে বলা হয়েছে। বিয়ের আড়ালে এমন প্র’তারণার ঘট’না অবশ্য ভারতে নতুন নয়। তবে প্রতা’রক কনের মাধ্যমে আর্থিক ক্ষ’তির পাশাপাশি প্রতা’রিতদের এই’ডসে আ’ক্রা’ন্ত হওয়ার আ’শঙ্কার খবর শোনা গেলো এবারই প্রথম।

ভারতীয় পুলিশ জানিয়েছে, ওই নারীর বাড়ি পাঞ্জাবে। বয়স ৩০। তিনি দুই সন্তানের মা। বিয়ে করে প্র’তারণার ব্যবসা করছেন চার বছর ধরে। এ কাজে তার আরও তিন সহযোগী ছিলেন। পুলিশ তাদেরও গ্রে’ফতার করেছে। পুলিশের কাছে অ’পরাধ স্বী’কার করেছেন অভিযুক্তরা।

কীভাবে বিয়ের মাত্র ১৫ দিনের মধ্যে বেরিয়ে আসতেন তা পুলিশকে জানিয়েছেন ওই নারী। তিনি বলেছেন, অধিকাংশ ক্ষেত্রে পণের মা’মলার হুম’কিতেই কাজ হয়ে যেতো। তবে তাতে সুবিধা না হলে শ্বশুরবাড়ির লোকদের অচেতন করে অর্থ-স্বর্ণা’লঙ্কার নিয়ে পালিয়ে যেতেন। পুলিশ জানিয়েছে, চার বছর আগে ওই নারীর স্বামী তাকে ছেড়ে চলে যান। এরপর থেকেই বিয়ে করে প্র’তারণার ব্যবসা ফেঁ’দে বসেন তিনি।

Sharing is caring!